সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ০১:৪৯:২৪ পিএম

শোভন রাব্বানী এবং ছাত্রদল !!!

সম্পাদকীয় | সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ০২:৩২:৫৭ এএম

অন্যের ঘর ভাঙতে গেলে নিজের ঘরও ভাঙে, প্রমাণিত!!

দীর্ঘদিনের অগোছালো সংসার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ছাত্র সংগঠন " ছাত্রদল " .

বহু ত্যাগ , নির্যাতন , চড়াই উৎরাই পেরিয়ে নিজেদের সংসার গোছানোর জন্য গণতান্ত্রিক উপায়ে নির্বাচনের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় কমিটি করার চূড়ান্ত দিন ধার্য্য করে বিগত কয়েকমাস যাবৎ দেশব্যাপী প্রচার প্রচারণা চালিয়ে আসছে এই ছাত্র সংগঠনটি .

অথচ হঠাৎ করে মহামান্য আদালত তাদের দলীয় অভ্যন্তরীণ সাংবিধানিক পথচলাকে রুদ্ধ করে দিলো .

এটাও কি হয় ???

বিএনপি নিজেদের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী নিজেদের নেতৃত্ব নির্ধারণের জন্য কি গণতান্ত্রিক অনুশীলনের স্বাধীনতাও নেই ??

আমরা কি হীরক রাজার দেশে বাস করছি ??

বিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক অভ্যেসে যখন একটি দল নিজেদেরকে গণতন্ত্রের কাঠামোতে নির্মাণ করার প্রচেষ্টা করছে, সেখানেও সরকারের এই ধরণের নিষেধাজ্ঞাকে সরকারের ভয়ঙ্কর দুর্বলতা বলা চলে .

তবে কি ছাত্রদলকে সরকার প্রচন্ড ভয় পায় ??

নইলে কেন এমন ব্যবস্থা ?

তাদের ঘরকে ভাঙতে গিয়ে আজ একই দিনে নিজেদের ঘরে আগুন লেগে ইতিহাসে আরেকটি কলঙ্কজনক অধ্যায় রচনা করলো সরকারি দল ও তার ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগ .

দুর্নীতির দায়ে বাংলাদেশের ইতিহাসে এই প্রথম কোনো ছাত্র সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্বের অপসারণ করতে হলো .

শিক্ষাঙ্গন ও শিক্ষার্থীদের চরম অবনতির শেষ প্রান্তে এসে পৌঁছেছে ছাত্র রাজনীতি .

কিছু কথা ক্ষনে ক্ষনে সত্য বলেই প্রমাণিত হয় .

* টক ফলের গাছে মিষ্টি ফল আশা করা যায়না !!
* গাছের গোড়ায় গলদ থাকলে আগা কখনোই মজবুত হয়না
* অন্যের ক্ষতি করতে গেলে নিজের ক্ষতি টের পাওয়া যায়না .

এদিকে ,

৭৪ বছর বয়স্কা মহিলাকে ২ কোটি টাকার দুর্নীতির অপরাধে অন্ধকার প্রকোষ্টে ফেলে রাখা হয়েছে . এদিকে ছাত্র, যুব , প্রশাসন , নেতা, কর্মী, ব্যাংক , এমপি, মন্ত্রী এমন কোনো সেক্টর নেই যেখানে দুর্নীতিতে ইতিহাস ভঙ্গ করেনি .

হাজার হাজার কোটি টাকা লোপাট হচ্ছে প্রতিদিন . পুলিশ , আদালত , বিচারপতি , শিক্ষক কে বাদ আছে দুর্নীতি থেকে ?

সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরি কিসিঞ্জার ১৯৭২ সালে বলেছিলেন, বাংলাদেশ একটি ‘তলাবিহীন ঝুড়ি’ হতে যাচ্ছে।

তিনি সময় টা বলেননি . আজ আমার মনে হচ্ছে তার কথাই সঠিক হতে চলেছে .

সরকারের কোষাগারে টাকার সংকট . তাইতো বিভিন্ন সেক্টরের জমানো টাকা, রাস্তায় টোল বসানোর মতো সিদ্ধান্ত নিতে হচ্ছে .

রাজনৈতিক ভাবে দেউলিয়া হয়ে এখন আর্থিক দেউলিয়াপনাতে পরিণত হচ্ছে দেশ এবং সরকার .

৪৭ বছর পরে দেশের এমন দুরাবস্থা কোনো ভাবেই গ্রহণযোগ্য নয় .

সাইফুর সাগর
সাংবাদিক


খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন