সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ০২:৪৬:৩৪ পিএম

আমাদের নারীদের দেহ ভোগ ও নৃশংস হত্যা করে ওরা !!!

সম্পাদকীয় | রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ০৬:১৮:৪০ এএম

ছিঃ বাংলাদেশ ছিঃ সরকার !!!
তোমরা গলা ছেড়ে চিল্লিয়ে বলো বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশ .

লজ্জা করেনা এসব বলতে ???

আজ কবিরুন নাহার দেশে ফিরেছে তোমাদের বানানো সেফ হোম থেকে . তোমাদের ঠিক করা সৌদি মালিক কবিরূন কে ২য় তলার সিঁড়ি থেকে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দিয়েছে . মধ্য বয়সী কবিরুন গড়াতে গড়াতে নিচে পড়েছে . মাথায় প্রচন্ড আঘাত আর পা পুরোটাই ভেঙে গেছে .
 
ঢাকা এয়ারপোর্টে আজ সাংবাদিকদের কাছে নিজের উপর বয়ে যাওয়া অত্যাচারের দিনগুলো বলছিলো আর ২ চোখ অঝোরে কান্না করছিলো .

সাংবাদিকদের কাছে বলেছে তার দুঃখ অতীতের কষ্টের জন্য নয় . তার কান্না এবং ভয় নিজ দেশে কিভাবে চলবে, কিভাবে জীবন যাপন করবে!!

স্বামী কিছুদিন আগে হার্ট এট্যাক করে বিছানায় পড়ে আছে . বড়ো মেয়ের বয়স মাত্র ১৭, ছেলের বয়স ১১ .

ওদেরকে কিভাবে ভরণ পোষণ করবে . যে কয়েকমাস সৌদিআরবে ঘর সামলানোর কাজ করেছে , মালিক একটি পয়সাও দেয়নি .

উপরন্তু প্রতিদিন সহ্য করতে হয়েছে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন .

গত ২০১৬ থেকে আজ পর্যন্ত প্রায় ৩০০ নারীর মৃত দেহ ফিরেছে বাংলাদেশে .

প্রতিদিন দেশে ফিরছে শেষ সম্বল বিক্রি করে মধ্যপ্রাচ্যে যাওয়া নারীগুলো . কেউ যৌন অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে আত্মহত্যা করেছে কেউ মুখ বুঝে সহ্য করে চুরি করে দেশে পালিয়ে এসেছে .

রাস্তায় রাস্তায় পড়ে আছে বাংলাদেশী অসহায় নারী গুলো . সেখান থেকে পুলিশ তুলে নিয়ে কখনো জেলখানায় নয়তো বাংলাদেশ দূতাবাসের কাছে হস্তান্তর করছে .

তারা কেউ-ই ফেসবুকে বা পত্রিকাওয়ালাদের কাছে নিজেদের করুন অবস্থা তুলে ধরতে পারেনা . নীরবে প্রতিদিন কেউ না কেউ দুঃখের বোঝা বুকে নিয়ে ফিরে আসছে নিজ দেশে .

কার দোষ?? কেন তাঁদের জীবন ছিন্ন বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে ??

সরকার ঢাকঢোল পিটিয়ে অসহায় নারীদের উৎসাহ দিয়ে দালালদের মাধ্যমে ঐসব দেশে ঘর ঝাড়পোষ করার কাজে পাঠিয়েছে . আজ তারা এমন নির্যাতিত হচ্ছে অথচ সরকারের কোনো ভ্রূক্ষেপ নেই ??

আমি বলব, সত্বর প্রতিটি নারী শ্রমিকের খবর নিন . ওরা কারো মা কারো বোন কারো মেয়ে . ওদের স্বজনরা কতো কষ্ট পাচ্ছে একবার অনুধাবন করুন .

নিজেদের প্রথম শ্রেণীর দেশ দাবি করে মধ্য বয়স্কা নারীদের অন্য দেশি পুরুষদের যৌন খোরাক মেটানো এবং তাদের ঘরবাড়ি ঝাড়ু দেয়ার কাজ করার ভিসায় পাঠাতে লজ্জাবোধ করেনা ?

সামাজিক মাধ্যম উত্তাল হওয়ার আগেই যথাযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করুন.

তাদের স্বাভাবিক জীবন ফিরিয়ে দিন . দেশে এনে তাদের আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করুন .

সাইফুর সাগর
সাংবাদিক

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন