সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮ ০২:৪৮:০০ এএম

ব্রিটিশ বাংলাদেশী তারকা শিল্পীদের চোখে ঈদ ভাবনা

তাজ সৌরভ | প্রবাস | শনিবার, ৯ জুন ২০১৮ | ০২:৪২:২৩ পিএম

দীর্ঘ একমাস আত্মসংযম ও আত্মত্যাগের সিয়াম সাধনা শেষে দুয়ারে এসেছে ঈদ, খুশির ঈদ! মূলত ঈদ মুসলিম সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব হলেও কালের পরিক্রমায় বিশেষত বাংলাদেশের কৃষ্টি সংস্কৃতিতে ঈদ রূপান্তরিত হয়েছে সার্বজনীন সামাজিক সাংস্কৃতিক উৎসবে। বাংলাদেশের মতো বিলেতের দুয়ারেও কড়া নাড়ছে ঈদ, যেখানে একটি বৃহত্তর বাংলাদেশী জনগুষ্টির বসবাস, যাদের মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য অংশ সদর্পে কাজ করছেন দেশীয় বাংলা সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে, অব্যাহত পরিচর্চায় নিজেদের গড়ে তুলেছেন শিল্পী রূপে সংস্কৃতির বিভিন্ন মাধ্যমে , কেউ বা প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী হিসেবে স্বাক্ষর রাখছেন স্বকীয় ব্যঞ্জনায় , অনেকেই স্ব স্ব ক্ষেত্রে অর্জন করেছেন সুনাম ও তারকা খ্যাতি। 

বলাবাহুল্য আর সব সবার মতো এইসব শিল্পীদের জীবনেও আসে ঈদ , প্রবাসের এই ব্যস্ত জীবনে আমরা জনমতের পক্ষ থেকে জানতে চেয়েছি তাদের ঈদ ভাবনা , ঈদ স্মৃতি এবং ঈদ অনুভূতির কথা, প্রতিশ্রুতিশীল ও তারকা শিল্পীদের সাথে কথা বলে প্রতিবেদনটি লিখেছেন কালচারাল রিপোর্টার তাজ সৌরভ । 




"ঈদ প্রতিটি মানুষের জীবনে নিয়ে আসুক অনাবিল সুখ, প্রশান্তি ও পারস্পরিক ভালোবাসা।"
গৌরী চৌধুরী, সংগীতশিল্পী।
 

আমি ঈদ আনন্দের মাঝেই বড় হয়েছি. বাংলাদেশে আমার শৈশব -কৈশোর কেটেছে জমকালো ঈদ আনন্দে. আমার স্কুল জীবনের বেশীর ভাগ বন্ধু ছিল মুসলিম. ওদের সাথে পড়তে গিয়ে, মিশতে গিয়ে আমার কখনোই মনে হয় নি ঈদ টা আমার নয়, ওদের. আমার শৈশবে ঈদ আসতো সার্বজনীন আনন্দবার্তা নিয়ে সবার মাঝে। আহা কী সুন্দর ছিল সেইসব দিন ..... ঈদের আগে রমজান মাসে আমাদের বাসা থেকে ইফতার বানিয়ে বন্ধুদের বাসায়, প্রতিবেশীদের বাসায় পাঠানো হতো প্রতি বছর, বন্ধু, প্রতিবেশীরাও আমাদের বাসায় ইফতার পাঠাতেন, এখনো আমি লন্ডনে এ রেওয়াজ যথা সম্ভব অব্যাহত রেখেছি , এই ইফতার দেয়া নেয়ার মাঝে কী অপরূপ সুখ আর ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ, তা আমি একটুও হারাতে চাই না। আমরা ঈদে নতুন জামা জুতো কিনতাম,বন্ধুদের বাসায় সেমাই খেতে যেতাম, সারা দিন বন্ধুদের সাথে চড়ুই পাখির মতো ঘুরে বেড়াতাম. ইস কী ভীষণ আনন্দময় ছিল সেইসব শৈশবের ঈদ ! এখনো আমি সুদূর লন্ডনে সম্প্রীতিময় এধারা অব্যাহত রেখেছি যথাসম্ভব, এখনো আমি বন্ধুদের বাসায় ইফতার পাঠানো, ঈদের দিন বন্ধুদের বাসায় বেড়াতে যাওয়া, সেমাই খাওয়া, আড্ডা দেয়া সমান উপভোগ করি, ভালোবাসি। আমি কামনা করি , ঈদ প্রতিটি মানুষের জীবনে নিয়ে আসুক অনাবিল সুখ, প্রশান্তি ও পারস্পরিক ভালোবাসা। 

"হেল্পলেস ফ্যামিলিগুলোকে যথা সম্ভব সাপোর্ট করবো, এ হোক আমাদের ঈদ অঙ্গীকার"
নাদিয়া আলী , প্রেজেন্টার, বিবিসি এশিয়ান নেটওয়ার্ক। 
 '

দ্যাট টাইম অফ দা ইয়ার ইজ হিয়ার এগেইন ! ঈদ মোবারাক টু এভরিওয়ান ' ঈদের দিনটি ফ্যামিলি মেম্বার ও ফ্রেন্ডদের সাথে সবার সুন্দর ও আনন্দঘন মুহূর্তে কাটুক, এ প্রত্যাশা আমার। সেই সাথে কিছু সময়ের জন্য হলেও আমাদের স্মরণ, দোয়া ও সহযোগিতা করতে হবে সম্প্রতি বাংলাদেশ ও ইংল্যান্ডসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে প্রাকৃতিক ও মানব সৃষ্ট ঘটনা দূর্ঘটনায় আহত নিহত মানুষ গুলোকে ও তাদের পরিবার পরিজনকে. এবং আমাদের যার যার অবস্থান থেকে অসহায়, হেল্পলেস ফ্যামিলি গুলোকে যথা সম্ভব সাপোর্ট করবো , এ হোক আমাদের ঈদ অঙ্গীকার. ঈদের দিনটির মতো সুখময় দিন হোক পৃথিবীর প্রতিটি মানুষের প্রতিটি দিন, সারা বিশ্ব প্লাবিত হোক শান্তির সুবাতাসে , এ প্রার্থনা আমার মহান সৃষ্টি কর্তার নিকট। 

"ঈদে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে দেখতে চাই"
রওশনারা মণি, সংগীতশিল্পী।


ঈদ একটি অন্যতম ধর্মীয় উৎসব এবং বাঙ্গালি সংস্কৃতি এই সব ধর্মীয় এবং সামাজিক উৎসব যেমন ঈদ পূজা পার্বণ চৈত্রসংক্রান্তি বৈশাখী ইত্যাদি ইত্যাদির নির্যাস গ্রহন করে উপমহাদেশের একটি প্রধান সমৃদ্ধ সংস্কৃতি হিসাবে স্বীকৃত, বর্তমানে দেশে এবং অান্তর্জাতিক পরিমন্ডলে মানবতা অসাম্প্রদায়িকতা নীতি মূল্যবোধের স্খলন দেখে রীতিমত বিব্রত বোধ করি। । ঈদে এক অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে দেখতে চাই এবং যেকোনো ধর্মীয় এবং সামাজিক উৎসব পালিত হউক মানবতা এবং অসাম্প্রদায়িকতার চেতনায়, ঈদ মোবারক। 

"ঈদ পারস্পরিক সৌহার্দ্য ও সহমর্মিতা নিয়ে বেঁচে থাকার মন্ত্র শেখায়।"
সোহেল আহমেদ , ফোক ডান্সার। 
    

ঈদ আমাদের ব্যক্তিগত ও সামাজিক জীবনে একটা অন্যতম প্রধান উৎসব। বিশেষত রোজার ঈদ! দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর এই উৎসব ত্যাগ তিতিক্ষা শেষে নিজেকে দেয়া পুরস্কারের মতই। এই উৎসব শুধু ঈদে নামাজ পড়া, সেমাই খাবার মধ্যেই শেষ হয়ে যায় না, এতে গভীরভাবে সুপ্ত রয়েছে মানুষে মানুষে বন্ধুত্বের চির শ্বাশ্বত সুর। হিন্দু মুসলিম জাতি ধর্ম নির্বিশেষে নিজেদের মধ্যকার ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ব্যবধান মান অভিমান ভুলে পারষ্পরিক সৌহার্দ্য ও সহমর্মিতা নিয়ে বেঁচে থাকার মন্ত্র শেখায় এই ঈদ। আমাদের শৈশবের ঈদের আদল আজকের দিনে অনেকটা পালটে গেলেও এর মূল দর্শণ কিন্তু একটুও বদলায়নি। আমি এখনো এই উৎসবকে আমাদের সামাজিক মিলন মেলা হিসাবেই দেখি। সারা বছর কথা হয়না, পরষ্পর পরষ্পরের সঙ্গে মুখ চাওয়া চাওয়ি বন্ধ, এমন সব সম্পর্কও দেখছি এই বিশেষ দিনে নবায়ন হয়েছে, নতুন করে প্রাণ পেয়েছে। আমি স্বপ্ন দেখি এমন সামাজিক মিলন মেলা গুলোতে যেন জাতি ধর্মের ব্যবধানগুলি ঘুচে যায়। শুধু মানুষ পরিচয় নিয়ে আমরা পরষ্পরের আরো কাছাকাছি আসতে পারি, পরষ্পরের প্রতি আরো মানবিক হয়ে উঠতে পারি।  

"সংঘাতময় বিশ্ব পরিস্থিতিতে ঈদের দিনটি সবার কাটুক অনাবিল হাসি ও আনন্দে"
সুমন শরীফ , সংগীত শিল্পী। 


ঈদ মানে আনন্দ, ভাবতেই ভালো লাগে। দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর, একটা দিন সবাইকে নিয়ে আনন্দ করা, এটা অনেক বড় ব্যাপার আমার কাছে। আমি চেষ্টা করি মা ও বোনদের ফ্যামিলির সবাইকে নিয়ে এক সাথে ঈদ করতে. মজার মজার খাবার আর সকাল বেলা আম্মার হাতের সেমাই সত্যি অনেক এনজয় করি. যদিও বিকেল বেলা বাসায় থাকা হয় না , ব্যস্ত থাকতে হয় ঈদের টিভি শো নিয়ে। সংঘাতময় এ বিশ্ব পরিস্থিতিতে ঈদের দিনটি সবার কাটুক অনাবিল হাসি ও আনন্দে, সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা।

"আনন্দধারায় প্লাবিত হোক প্রতিটি মানুষের জীবন"
রুবাইয়েত জাহান,সংগীতশিল্পী।
 

ঈদের দিনটি আমার জন্য অনেক স্পেশাল একটা দিন. আমি এ দিনটি স্পেশালি আমার ফ্যামিলি'র সাথে কাটাতে পছন্দ করি. এছাড়া সংগীত ভুবনের অনেকেই ঈদ এ আমন্ত্রণ জানিয়েছেন. ঈদ উপলক্ষে আমার একটা নতুন গান রিলিজ হবার কথা ছিল, কিন্তু সময়ের অভাবে সেটা সম্ভব হয়নি. তবে এই ঈদে ইউকের কিছু টিভি চ্যানেলে ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানমালায় পার্টিসিপেট করেছি। সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা. আনন্দধারায় প্লাবিত হোক প্রতিটি মানুষের জীবন, এটাই আমার ঈদের কামনা।

"ছেলে বেলার সেই ঈদের আমেজটা এখনো মন থেকে যায়নি "
নুরজাহান শিল্পী , সংগীতশিল্পী। 


ঈদ মানে একটা খুশি-খুশি রব চারদিকে। ছেলে বেলার সেই ঈদের আমেজটা এখনো মন থেকে যায় নি. "ঈদ আসছে" এই আমেজটাই যেন সারাক্ষন বয়ে বেড়াতো মনে. নতুন জামা কেনার আনন্দ, সেই জামা লুকিয়ে রাখা, বন্ধুদের কাউকে দেখানো যাবে না, উফ আরো কত কী ! বিলেতে থেকেও সেই নিজের দেশের ঈদ আনন্দের কথা মন থেকে সরাতে পারি না। বিলেতেও ঈদটা ভালোই কাটে. ঈদের কেনা কাটা , মেহেদী আল্পনা, ঈদের রান্না চান রাত থেকে পর দিন সকালেও চলতে থাকে. তারপর খাওয়া দাওয়া করে একটু বিশ্রাম নিয়ে বন্ধুদের বাড়িতে যাওয়া, বন্ধুরাও আসে। যেহেতু বিলেতে গান করি, সেই সুবাদে ঈদে গান নিয়ে কিছু একটিভিটিস তো থাকেই. যেমন "চ্যানেল এস" এর ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানে থাকছি, এছাড়া অন্যানো চ্যানেলে ঈদের লাইভ শোতে যেতে পারি। সো , এভাবেই ঈদের দিনটি কেটে যায়. দেশে বিদেশে সবার ঈদ সুন্দর কাটুক, এ প্রত্যাশা আমার।

"ঈদে মাকে খুব মনে পরে"
জি এম ফুরুখ, লেখক ও চলচ্চিত্র পরিচালক।


মুসলিম রীতিতে সবচেয়ে বড় উৎসবটির নাম ‘ঈদুল ফিতর’। আর আমি একজন মুসলিম ঘরের সন্তান হিসেবে প্রতি বৎসর এই দিনটা পরিবার ও বন্ধুবান্ধবদের সাথে আনন্দময় করে নিতে ভাগ করে নেই।দীর্ঘ একমাস সিয়ামের পর যে ঈদুর ফিতর আসে, তার মুসলিমদের জন্য যেমন আনন্দ বয়ে আনে, তেমনি একটা বন্ধন তৈরী করে। তবে, আমার জীবনের অনেক ঈদ আমার মায়ের সাথে করা হয়ে উঠে না, তাই যখনই মাকে ছাড়া ঈদ করি, আমার মাকে খুব মনে পড়ে। মনের অজান্তে ধুঁকে ধুঁকে কাঁদি আর আপসোস করি। আর তাই ২০১৬ সালের ঈদুর ফিতরের জন্য আমার মাকে স্মরণ করে একটি এক ঘন্টার নাটক ‘আর্তনাদ’ বানিয়েছিলাম, যেখানে এক মায়ের সন্তান তখনই তার মায়ের অভাব বুঝতে পারে, যখন তার সন্তান জন্ম হয় এবং এই সন্তানটা কান্না করে তার ঘুম ভাঙ্গে, কাছে আসলে সন্তানটা তার আঙ্গুল টেনে ভালোবাসা পেতে চায়। আর এবারের ঈদুর ফিতরের জন্য আমি বাংলা টিভিতে ৭ পর্বের একটি ধারাবাহিক নাটক ‘স্বপ্ন যাত্রা’ নিয়ে আসছি, যেটি ঈদের দিন থেকে সাত দিন পর্যন্ত প্রতিদিন রাত সাড়ে নয়টায় বাংলা টিভিতে দেখাবে।

"প্রবাসে ঈদ একটু ভিন্ন ব্যঞ্জনায় আসে...."
মিনহাজ খান, অভিনেতা। 


ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি. আর এই আনন্দ ও খুশি শব্দ দুটি পরিপূর্ণতা পায় তখন যখন আশেপাশে কষ্টে থাকা মানুষদের নিয়ে এক সাথে ঈদ করি. প্রবাসে ঈদ একটু ভিন্ন ব্যঞ্জনায় আসে, বাবা মা , ভাই বোন আত্মীয়স্বজনকে দূরে রেখে ঈদ করাটা অনেক বেশি কষ্টের. তারপরও প্রবাসে আমাদের পাশে থাকা মানুষদের নিয়ে হাসি মুখে ঈদ উদযাপন করি, তার মাঝে আবার আনন্দ অন্যরকম , কারণ Life Goes On ........

"ঈদে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে 'চান রাত' "
সোনিয়া সুলতানা, নৃত্যশিল্পী।


ঈদের দিনটি আমার কাছে অনেক বেশি স্পেশাল। একমাস রোজা রেখে ঈদ উদযাপনের আনন্দই অন্যরকম. তবে ঈদে খুব মিস করবো বাবা মা ভাই বোনকে খুব. দেশের ঈদের আনন্দ এখানে ততটা না পেলেও চেষ্টা করি আশেপাশের সবাইকে নিয়ে ঈদ উপভোগ করার. ঈদে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে "চান রাত" . রাত জেগে গ্রীন স্ট্রিট এ মেহেদী দেয়া, শপিং করা, ফ্রেন্ডরা মিলে আড্ডা দেয়া, আর ঈদের দিন নানা রকম রান্না করে অতিথি আপ্যায়ণ করতে খুব ভালো লাগে. আর ভালো লাগে সেলামি পেতে, কিন্তু এখনতো আর পাইনা , উলটো দিতে হয় , হা হা হা....... এবারের ঈদে আমি দর্শকদের জন্য সাত পর্বের ঈদের বিশেষ নাটক "স্বপ্ন যাত্রা" নিয়ে আসছি বাংলা টিভিতে, এছাড়া বিশেষ ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান "ঈদ আনন্দ"তে থাকছি বিশেষ একটি পর্বে। সবার ঈদ সুন্দর ও নিরাপদে কাটুক, এ প্রত্যাশায় ..... 

"এবারের ঈদটা বাংলাদেশে বাবা মায়ের সাথে কাটাবো"
সাঈদা তানি, সংগীতশিল্পী। 


গত কয়েক বছরের ঈদ থেকে এবার এর ঈদ আমার জন্য অনেক বেশি আনন্দময়. কারণ এবারের ঈদটা বাবা মা, ভাই বোনের সাথে কাটবে বাংলাদেশে. ঈদ শুধু আনন্দ নিয়ে আসে না এই ঈদ আমাদের অনেক কিছু শিখায় যেমন ত্যাগ সংযম সৌহার্দ্যতা,তাই এই ঈদ এর আনন্দ সবার সাথে ভাগ করে নিতে চাই. ঈদ এর বিশেষ কিছু অনুষ্ঠান এ থাকবো এটি এন বাংলা ইউ কে, বাংলা টি ভি, চ্যানেল এস এর পর্দায়. অপেক্ষায় আছি কিছু নতুন গান মুক্তি পাবার বাংলাদেশ এর একজন সনামধন্য মিউজিক ডিরেক্টর এর কম্পোসিশন আর আমার গাওয়া গান গুলো পৌঁছে দিতে চাই আমার শ্রোতা দের কাছে. সবার দোয়া আর ভালোবাসা নিয়ে বাঁচতে চাই, গাইতে চাই। সবাইকে ঈদ এর অনেক শুভেচ্ছা ভালোবাসা। 

"আমি মনে করি ঈদের সবচেয়ে বড় শিক্ষা সাম্য ও ভ্রাতৃত্ববোধ। "
আরজুমান্দ মুন্নী, নিউজ প্রেজেন্টার। 


ঈদুল ফিত্‌র মুসলমানদের প্রধান দুটি ধর্মীয় উৎসবের অন্যতম। ঈদ ও ফিত্‌র দুটিই আরবী শব্দ। ঈদ এর অর্থ উৎসব বা আনন্দ। ফিত্‌র এর অর্থ বিদীর্ণ করা, উপবাস ভঙ্গকরণ, স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাওয়া। পবিত্র রমযান মাসে সিয়াম সাধনা ও সংযম পালনের পর শাওয়াল মাসের ১লা তারিখে স্বাভাবিক কর্মজীবনে ফিরে যাওয়ার আনন্দময় দিবসটি ঈদুল ফিত্‌র নামে অভিহিত। এই দিনটির জন্যই বছর ধরে অপেক্ষা করে মুসলিম উম্মা. শ্রেণী বিভেদহীন সার্বজনীনতায় উদ্দীপ্ত হোন সব পেশার মানুষ।আমি মনে করি ঈদের সবচেয়ে বড় শিক্ষা সাম্য ও ভ্রাতৃত্ববোধ।রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব সংঘাত হানাহানি বিভেধ ভুলে বছরের প্রতিটি দিনই হয়ে উঠুক ঈদের দিনের মতো অনাবিল আনন্দের ও শান্তির ।

"ঈদে বাংলাদেশের পথশিশুদের নতুন জামা উপহার দিতে চাই। "
জেরিন আহমেদ স্মৃতি, অভিনেত্রী। 


যদিও দেশের বাইরের ঈদ টা অন্য রকম. তার পরও এক মাস সিয়াম সাধনার পর এই ঈদুল আজহা কে ঘিরে আমাদের পরিকল্পনার শেষ নাই. ছোট বেলায় এক ভাবে প্ল্যান করতাম র এখন অন্য ভাবে প্ল্যান করি. স্বামী,ছেলে,মেয়ে,মা,ভাই , বোন,শশুর,শাশুড়ি,মামা,মামী বন্ধু, বান্ধব আরো যত আত্মীয় স্বজন আছে সবার সাথে দেখা হবে এবং সবাই মিলে আনন্দ করেই ঈদ এর দিন কাটাবো. আর এখন তো ঈদ এর জন্য কেনা কাটা আরম্ভ করতে হবে এতে বরং আরো বেশি আনন্দ। এবং এই আনন্দ বাড়াতে বাংলাদেশ এর পথ শিশুদের জন্য এটলিস্ট একটা নতুন জামা কিনতে চাই. আর ঈদ উপলক্ষ্যে আমার নতুন নাটক এবং একটা মিউজিক ভিডিও আসছে এবং আমি খুব আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছি . আশা করি সবার ভালো লাগবে. সবাইকে ঈদ এর শুভেচ্ছা প্রতি টা মানুষের জন্য ঈদ নিয়ে আশুক আনন্দ অফুরান। 

"এখনো মন কাঁদে, ছোট বেলার ঈদ আনন্দ কে যদি ফিরে পেতাম ! "
সাজ্জাদ মিয়া, সংগীতশিল্পী। 


ভাবতে অবাকই লাগে হাঁটি হাঁটি পা পা করে জীবনের অনেকগুলো বছরই পার করে ফেললাম. পার করে ফেললাম অনেকগুলো ঈদের উৎসব. তবে জীবনের এ পর্যায়ে এসে ঈদ উদযাপনের কিছু পার্থক্য দেখতে পাচ্ছি. সত্যিকার অর্থে ছোটবেলার ঈদগুলো ছিল অন্যরকম আনন্দের. পাড়ার ছেলে মেয়েদের সাথে চাঁদ রাতে আড্ডাবাজি, সকালে ঈদের নামাজ, প্রতিবেশী, আত্মীয়স্বজনের বাসায় বেড়াতে যাওয়া, মায়ের হাতের বিভিন্ন স্বাদের খাবার , আজো মনে হয় জিভে স্বাদ লেগে আছে ! বেশ ক'বছর হলো বাংলাদেশে ঈদ করার সুযোগ হয়ে উঠেনা. লন্ডনে বন্ধুবান্ধব, পরিচিত মানুষদের সাথেই কেটে যায় ঈদের আমেজ. চাঁদ রাতে ঘোরাঘুরি, সকালে ঈদের নামাজ ও বন্ধুর বাসায় দাওয়াত, এভাবেই কেটে যায় প্রবাসী জীবনের ঈদ. তবে এখনো মন কাঁদে, ছোট বেলার ঈদ আনন্দকে যদি ফিরে পেতাম.  "

সেই ঈদ কখনো ভুলবো না ....."
সৈয়দা নাসিম কুইন , সংগীতশিল্পী। 


ঈদ নিয়ে তো শত জন্মের শত কথা! আমার ঈদ ছিল বরাবরই ভিন্ন ভিন্ন ধাঁচের। একদম ছোটবেলা ভাবতাম, আজ কোন এক এতিম দুখী ছেলে বা মেয়েকে পথে পাব; নবিজীর গল্পের মতন! সে আর আমি ঈদ-আনন্দ করব! “নাই হল মা বসন ভূষণ এই ঈদ এ আমার” নজরুল সঙ্গীত গাইতাম। আর আম্মা বুঝতে পারতেন যে আব্বা’র কেনা কাপড় হয়ত পছন্দ হয়নি। আম্মা বসে যেতেন ডিজাইনার এর মতন একেক ডিজাইন এর ড্রেস দিতে। ইশ ... তখন গাইতাম ‘চাঁদের পাল্কি চড়ে”। আমরা ওই জীবনে কখনো শপিং এ যাইনি। একবার ঈদে আব্বা খুব অসুস্থ। সে কারণে আমার বোন আর আমি যেয়ে আব্বাকে প্রস্তাব করলাম ; খুব ভয়ে... “আব্বা আমরা কি সিলেট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যেতে পারব ?” ঃ কেন মা ? ঃ জী আমরা আজ ঈদের দিন হাসপাতালের সকলের সাথে কিছু সময় কাটাতে চাই। ঃ যাও মা।” সেই ঈদ কখনো ভুলবোনা ! আর এ বেলা ঈদে ব্যস্ত থাকি মেয়ের কি ড্রেস বানাবো, স্বামীর পাঞ্জাবী তো অবশ্যই, আমার বসন-ভূষণ ওতেই হয়ে যায় । আরও মনে পড়ে দরগাহ মহল্লার আমাদের বাড়ির বিপরীতে সুজিতদের কথা, ওরা সন্ধ্যায় উকি দিত। আমাদের রাজার গলিতে মনে হত ঘোড়া হাঁটছে হাজার খানিক! সকল মুসল্লিরা নামাজে যেতেন। একি সাথে সুজিত তাদের ঘরের মন্দিরের টিং টিং টিং। এবার ঈদে আমার বন্ধু লিউইস মট্ট্রাম আসবে। ঈদ এর মিউজিক ভিডিও নিয়ে কাজ করব। আমি আনন্দ ভালবাসা জীবন খানা আর মাঝে মাঝে চুপসে নেয়া বিবেককে নিয়ে ভালোই দিন কাটিয়ে রাত কাটাচ্ছি। সকল বর্ণ-ধর্ম, ভেদ-বিভেদ বাদ দিয়ে আনন্দের মোবারক জানাই সকলকে।

"ঈদে সবচেয়ে বেশি মিস করি মায়ের হাতের মজাদার সব খাবার"
মিরাজ খান রাজ, অভিনেতা। 


ঈদ মানেই তো আনন্দ. আর এই আনন্দটা খুব বেশি উপভোগ করতাম যখন বাংলাদেশে ছিলাম. বাবা-মা , ভাই বোন , পাড়া প্রতিবেশী, আত্মীয় স্বজন ও বন্ধু বান্ধবদের সাথে ঈদ করার মজাই আলাদা. লন্ডনেও বন্ধু বান্ধবদের সাথে ঈদের আনন্দ উপভোগ করি, তবে বাংলাদেশের ঈদের মজাটা খুব মিস করি. সবচেয়ে বেশি মিস করি মায়ের হাতের মজাদার সব খাবার এবং পরিবারের মমতা মাখা ভালোবাসা। সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা।

"ঈদ মহান আল্লাহ'র শ্রেষ্ঠ এক উপহার "
স্নিগ্ধা কামরুল, সংগীতশিল্পী। 


শৈশব কৈশোরের ঈদ কেটেছে অনেক মজার ও রোমাঞ্চকর. বাবা মা, চাচা ফুপুর কাছ থেকে ঈদের গিফট পেতাম, ঈদের নতুন জামা পরে সালাম করা ও সেলামির মজা ছিল অন্যরকম. বড় হওয়ার পরে ঈদের মাত্রাটা হয়েছে আরেকরকম. দেশের বাইরে ইতালিতেও ঈদের আনন্দও কম ছিলোনা, বাংলা টাউনে বাসা হওয়ায় সন্ধ্যায় দোকানে দোকানে জমে উঠতো আড্ডা আর কেনাকাটা. আর চাঁদ রাতের মজা ভোলার নয়, রাত জেগে মেহেদী দেয়া, আরো কতো কী ! লন্ডনের ঈদও জমে উঠেছে, এতো বড় পরিসরে ঈদগার জামাত প্রবাস জীবনে কখনো দেখিনি, ঘরে ফিরে মেহমানদারী, বন্ধুদের বাসায় যাওয়া, ছেলেকে নতুন জামা পরিয়ে বাইরে যাওয়া. পরিশেষে ঈদ মানেই আনন্দ আর মহান আল্লাহ'র শ্রেষ্ঠ এক উপহার.

"সেলামি ছাড়া কী ঈদ জমে? একদমই না ! "
শারমিন ভূট্টো, নিউজ প্রেজেন্টার।
 

সেলামি ছাড়া কী কোন ঈদ জমে?একদমই না! যে ঈদ মানে আনন্দ তার অনেকটাই কিন্তু যোগ হয় এ সেলামি সংগ্রহের পর্ব থেকে। কতো সেলামি পেলাম তা আমার কাছে বড় না হলেও কতোজনের কাছ থেকে পেলাম তা অবশ্যই প্রাধান্য পেয়ে থাকে।কারণ দিনশেষে মাথায় রাখতে হতো পরের ঈদে কে আমাদের অকস্মাৎ সেলামি অভিযানের শিকার হবে। গেলো বছর ঈদে সেলামি পর্বের প্রথম শিকার ছিলেন আমাদের সবার পছন্দের টিভি ব্যক্তিত্ব তানভির ভাই। সবার সামনে থেকে চিলের মতো করে ছিনিয়ে নেয়া হলো সেই সেলামি। বহুদিন ধরে সেই সেলামি সযত্নে তুলে রাখা হয়েছিলো। আর বছর বছর জন্ম নেয়া সেলামি সংগ্রহের ঘটনা দ্বিগুণ উৎসাহ দেয় ঈদের আনন্দ উপভোগ করবার। ইদানিং অবশ্য একটু ভয়ে থাকি আমি না আবার কোন সেলামি গ্রুপের খপ্পরে পড়ে যাই । তবে শুধু সেলামি সংগ্রহেই নয়,সেলামি দেয়াতেও আনন্দ আছে যা কিছুটা হলেও এখন অনুভব করি। দেশে থাকতে প্রতিটি ঈদ শুরু হতো বাবা-মাকে সালাম করে তবে গত ৫ বছর পরিবার থেকে দূরে থাকায় ঈদের খুশিতে কিছুটা হলেও ভাটা পড়েছে। শুধু ফোনে কথা বলে নতুবা তাদের মায়াভরা মুখগুলো আধুনিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোর মাধ্যমে দেখেই খুশি রাখতে হয় নিজেকে।

" সবার ঈদের স্বপ্ন যাত্রা সুন্দর ও নিরাপদ হোক "
সালমা সুলতানা , অভিনেত্রী ।


আসলে বিদেশের মাটিতে ঈদের আনন্দ একরকম, আর দেশের আনন্দ অন্যরকম. দুটোকে কম্পেয়ার করলে আমার কাছে দেশের ঈদের আনন্দটাই প্রাধান্য পাবে. আসলে দেশকে আমরা কতটা ভালোবাসি, তা বিদেশ না এলে বোঝতে পারতাম না। প্রতি ঈদের মতো এবারের ঈদেও মিস করবো আমার বাবা মা , ভাই বোন ও আত্মীয় স্বজনকে. সকালে তাদের সবাইকে ফোন করে ঈদের শুভেচ্ছা জানাবো, তারপর লন্ডনের ফ্যামিলি মেম্বার ও বন্ধুদের নিয়ে ঈদ আনন্দে মেতে উঠবো। এবারের ঈদে আমার ভক্ত দর্শকদের জন্য স্পেশাল ঈদ উপহার নিয়ে আসছি. বাংলা টিভিতে আমার অভিনীত সাত পর্বের ঈদ ধারাবাহিক "স্বপ্ন যাত্রা" প্রচার হবে, আসা করি সবাই ঈদ আনন্দে নাটকটি উপভোগ করবেন। সবার ঈদের স্বপ্ন যাত্রা সুন্দর ও নিরাপদ হোক, এ কামনা আমার।


নিউজের বাকি অংশ

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন