সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯ ০৪:৪৫:৩৯ এএম

শেরপুরে গলায় দড়ি দিয়ে কিশোরীর আত্মহত্যা

জাহিদুল খান সৌরভ | জেলার খবর | শেরপুর | শুক্রবার, ২৭ অক্টোবর ২০১৭ | ১০:৪১:০৯ এএম

শেরপুরে কণিকা আক্তার (১২) নামে এক কিশোরী গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

কনিকা শেরপুর সদর উপজেলার গাজীর খামার ইউনিয়নের চক কুমড়ি গ্রামের কোরবান আলীর মেয়ে।

গতকাল বৃহস্পতিবার গলায় দড়ি দেওয়া অবস্থায় তার লাশ দেখে সদর থানায় খবর দেওয়া। পরে পুলিশ কনিকার লাশ উদ্ধার, করে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে।

প্রতিবেশীদের কাছ থেকে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে এ পরিবারে অভাব অনটন লেগেই ছিল। তাই কনিকার পরিবারের সকল সদস্যকে কষ্টে জীবনযাপন করতে হত। পরিবার ও এলাকাবাসীর দাবী পারিবারের এসব কষ্ট সহ্য করতে না পেরেই কনিকা আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

প্রতিবেশীরা আরও জানায়, কনিকা অত্যন্ত শান্ত স্বভাবের মেয়ে ছিল। তার বাবা পেশায় একজন জেলে, বিলে মাছ ধরে বাজারে বিক্রি করে সংসার চালাত। কোনদিন বৈরী আবহাওয়া বা শরীর খারাপ অথবা মাছ না পাওয়া গেলে সেদিন তাদের না খেয়েই থাকতে হতো।

টাকার অভাবে ও সুচিকিৎসা না পেয়ে কণিকা ও তার ভাইকে রেখে তার মা মারা গেলে তার বাবা কোরবান আলী আরেকটি বিয়ে করেন। অভাবের কারণে সদ্য জন্ম নেওয়া কণিকার সৎ ছোট ভাইকে তার সৎ মা অন্যের কাছে দত্তক দিয়েছেন।

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন