বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯ ১০:৫২:১৯ এএম

শার্শায় মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন, কৃষকের মুখে হাসি

আহম্মদ আলী শাহিন | জেলার খবর | যশোর | বুধবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ | ০৬:৫২:১০ পিএম

ছবিটি প্রতীকী যশোরের শার্শায় মিষ্টি কুমড়ার বাম্পার ফলন হয়েছে। ফলন ভাল হওয়ায় ও নায্য মূল্য পাওয়ায় মিষ্টি কুমড়া চাষীরা বেশ খুশি। এ উপজেলায় আগামী বছর মিষ্টি কুমড়ার চাষ আরও বেশি হওয়ার দাবী কৃষকের।

মিষ্টি কুমড়া একটি লাভ জনক ফসল। অল্প খরচে অধিক মুনাফা হওয়ায় শার্শার কৃষকরা মিষ্টি কুমড়া চাষে ঝুকে পড়েছে। উপজেলায় ১৬৫০ হেক্টর জমিতে সবজি চাষের মধ্যে ১৮০ হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়ার চাষ হয়েছে। উপজেলার শার্শা সদর, বড় আঁচড়া ও কায়বা ইউনিয়নে এ চাষ বেশি হয়েছে।

পাইকারী ব্যবসায়ীরা কৃষকের জমিতে গিয়ে কুমড়া ক্রয় করায় কৃষককে বিক্রি করতে বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে না। এক বিঘা জমিতে মিষ্টি কুমড়া চাষ করতে খরচ হয় ২’হাজার টাকা আর বিক্রি হয় ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা। এলাকার চাহিদা মিটিয়ে এ কুমড়া ঢাকা ও চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে চলে যাচ্ছে।

চলতি রবি মৌসুমে শার্শা উপজেলায় ১৬৫০ হেক্টর জমিতে শাকসবজির চাষ হয়েছে। তারমধ্যে ১৮০ হেক্টর জমিতে মিষ্টি কুমড়ার চাষ হয়েছে। মিষ্টি কুমড়ার চাষ করতে চাষীরা বেশি আগ্রহ প্রকাশ করে কারণ এটা স্বল্প কালীন ফসল। এর থেকে একজন চাষী বেশী মুনাফা অর্জন করতে পারে।

দ্বিতীয় শষ্য বহুমুখী প্রকল্পের আওতায় চাষীদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। এক বিঘা জমিতে মিষ্টি কুমড়া চাষ করে চাষীরা ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা আয় করে থাকে। আমরা চাষীদেরকে বিভিন্ন প্রকার সবজি চাষ করতে পরামর্শ প্রদান করছি। স্থানীয় চাহিদা মেটানোর পর ঢাকা ও চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে এই মিষ্টি কুমড়া সরবরাহ করছে।

অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর শার্শায় কুমড়ার চাষ বেশি হয়েছে। প্রতি বিঘা ৩৫ থেকে ৫০ হাজার টাকা দরে চাষীদের কাছ থেকে কেনা হচ্ছে। ঢাকা চট্রগ্রামসহ দেশের বড় বড় হাটগুলোতে পাঠাচ্ছি। চাষীরা কুমড়ার ব্যাপক দাম পেয়ে খুশি।

সরকারী পৃষ্ঠপোষকতা পেলে যশোরের শার্শায় দেশের সব চেয়ে বেশি মিষ্টি কুমড়ার চাষ হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন