সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯ ০১:৪৮:৪০ পিএম

শেরপুরে যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীর চুল কর্তন

জাহিদুল খান সৌরভ | জেলার খবর | শেরপুর | বুধবার, ২৬ অক্টোবর ২০১৬ | ০৩:২৯:১৯ পিএম

যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীর চুল কেটে দেয়ার মতো জঘন্য ঘটনা ঘটাল পাষণ্ড স্বামী ও তার পরিবার। তবুও বড় অংকের টাকা নয়, মাত্র ৫ হাজার টাকার জন্যই ঘটেছে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা। ঝিনাইগাতী উপজেলার পাইকুড়া গ্রামের  আনসার আলীর ছেলে মো: খোরশেদ আলম ঘটিয়েছে ঘটনাটি । 

জানা যায়, ৫ বছর আগে একই গ্রামের মো: রহিম বাদশার ১ম মেয়ে মাজেদা খাতুনকে (২৫) বিয়ে করেছিল খোরশেদ আলম । সংসার জীবন কিছুদিন ভালো কাটলেও যৌতুকের দাবিতে দিনদিন তাদের সম্পর্কের অবনতি হচ্ছিল। যৌতুকের জন্য স্বামী, শ্বাশুড়ি ও তার ননদরা ৫ হাজার টাকা বাপের বাড়ি থেকে আনার জন্য চাপ দেয়। 


এর আগেও বাপের বাড়ি থেকে যৌতুক হিসেবে ৫০ হাজার টাকা দেওয়া হয় তাদের । শশুরবাড়ির কথা মতো মাজেদা যৌতুকের টাকা আনতে অস্বীকার করলে তার উপর নেমে আসে অমানবিক নির্যাতন। এক পর্যায়ে ঘরের ভেতর দরজা আটকে মারপিট করে স্বামী। এরপর শ্বাশুরী ও ননদরা মিলে মাজেদার চুল কেটে বাপের বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়।

এ ঘটনায় গত  মাজেদার বাবা রহিম বাদশা স্বামী খোরশেদ, শুশুর আনসার আলী, শ্বাশুড়ি উম্মে কুলসুম, ননদ নাজমা, নাছিমা ও নার্গিছকে আসামী করে ঝিনাইগাতী থানায় নারী নির্যাতন মামলায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ পেয়ে থানা পুলিশ ৪ জনকে বাড়ি থেকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। 

এ ব্যাপারে এসআই সারোয়ার হোসেন গ্রেফতারের কথা স্বীকার করেন, এবং বলেন গ্রেপ্তারের পর তাদের কোর্টে চালান করা হয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন